Book

০৪) ইলমের বারাকাহ পেতে তাড়াহুড়াে করুন

যুবকদের জন্য সালাফদের চতুর্থ নসিহা

ইলমের বারাকাহ পেতে তাড়াহুড়াে করুন।

সুফিয়ান আস সাওরী (রঃ) (মৃত্যু ১৬১ হিজরি) এর নসিহা।
যায়েদ ইবনে আবু-যারিক্কা থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন,
تخرج شيا ونحن على بابه قال يا معشر الشباب تعجلوا بركة هذا
العلم فإنك لا تدرون لكم لا تلون ما تؤون مثه ليفيد بگم
بعا

একদা সুফিয়ান আস-সাওরী (রঃ) বাড়ি থেকে বের হলেন, এমতাবস্থায় আমরা তার দরজায় ছিলাম। অতঃপর তিনি বললেন, হে যুবকরা! এই ইলমের বারাকাহ পেতে তাড়াতাড়ি ছুটে যাও, কেননা নিশ্চয়ই তােমরা জানাে না যে, সম্ভবত তােমরা এটা থেকে যা আশা করাে, তাতে পৌছাতে পারবে না। সুতরাং তােমরা একে অপরের উপকার করবে।”

১০. আৰু নুআঈম, হিলইয়াতুল আওলিয়া, ৬ষ্ঠ খণ্ড, পৃ. ৩৭০

তার এই বক্তব্য, “জ্ঞানের এই বারাকাহ পাওয়ার জন্য দ্রুত অগ্রসর হও’ অর্থাৎ তােমার যৌবনের সুযােগের সদ্ব্যবহার করাে এবং এটি ইলম অন্বেষণে কাজে লাগাও। এর কারণ হলাে, যখন একজন মানুষ বৃদ্ধ হয়, তখন তার যৌবনে থাকা উদ্দীপনা, স্মৃতিশক্তি ও মুখস্থ করার সক্ষমতা দুর্বল হয়ে যায়। এটি পরবর্তীকালে তাকে বিভিন্ন দায়িত্ব পালন, বিভিন্ন কর্মকাণ্ড-কর্মশালা ও বিভিন্ন দফতর-সংস্থার বেষ্টনীতে আবদ্ধ করে ফেলে। যেখানে যৌবনকালে উপরিউক্ত কোনাে প্রতিবন্ধকতা থাকে না। অনুরূপভাবে যৌবনের সময়কালটি দ্রুত শেষ হয়ে যায়। যেমন ইমাম আহমাদ বিন হাম্বল (রঃ) বলেন, যৌবন যেন আমার হাতের আস্তিনের ভিতরে থাকে আবার তা ঝরে পড়ে এ ছাড়া অন্য কিছুর সাথে তাকে তুলনা করি না।
হাফেয আয-যাহাবী, সিয়ারু আলাম আন-নুবালা, ১১ তম খণ্ড, পৃ. ৩০৫।

তার বক্তব্য, “নিশ্চয়ই তােমরা জানাে না যে, সম্ভবত তােমরা এটা থেকে যা আশা করাে, তাতে পৌঁছাতে পারবে না। অর্থাৎ যুবক প্রত্যাশা করে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ জ্ঞান অর্জন করতে, একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ মুখস্থ করতে, একটি নির্দিষ্ট পরিমান পড়তে এবং সে অন্যান্য জিনিস। আশা করে থাকে, কিন্তু সে সেগুলি অর্জন করেতে পারে না। কিন্তু যখন সে নিজে প্রচেষ্টা করে, আল্লাহর সাহায্য প্রার্থনা করে এবং তার যৌবনের সময়কালের সদ্ব্যবহার করতে আগ্রহী হয়, তবে অবশ্যই আল্লাহর অনুমতিক্রমে সে প্রচুর বারাকাহ অর্জন করতে পারে। আল্লাহ তা’আলা বলেন,
والذين جاهدوا فينا لنهديهم شبلنا وإن الله لمع المحسنين
যারা আমার পথে সাধনায় আত্মনিয়ােগ করে, আমি অবশ্যই তাদেরকে আমার পথে পরিচালিত করব। নিশ্চয় আল্লাহ সৎকর্মপরায়ণদের সাথে আছেন।
সূরা আল আনকাবুত-২৯ : ৬৯।

তার বক্তব্য, সুতরাং তুমি একে অপরের উপকার কর’ এখানে যুবসমাজকে উৎসাহ দেওয়া হয়েছে যে, তারা একে অপরের সাক্ষাৎ ও তাদের উপকার ও কল্যাণকর বিষয়ে একত্রিত হবে এবং তাদের মধ্যে জ্ঞানের পর্যালােচনা করবে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.